• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

হাওড়ার হোটেল থেকে উদ্ধার হওয়া তরুণীর মৃত্যু, আশঙ্কাজনক তরুণ

Hotel
প্রতীকী ছবি।

হাওড়ার হোটেল থেকে শনিবার অচৈতন্য অবস্থায় উদ্ধার করা হয়েছিল যুগলকে। রবিবার হাওড়া জেলা হাসপাতালে মৃত্যু হল তরুণীর। এখনও আশঙ্কাজনক অবস্থায় চিকিৎসাধীন তরুণ।

গত কাল গোলাবাড়ি থানা এলাকায় একটি হোটেলের ঘর থেকে উদ্ধার করা হয়েছিল ওই যুগলের অচৈতন্য দেহ। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, পূর্ব মেদিনীপুরের লক্ষণচক এলাকার বাসিন্দা প্রীতম প্রামানিক এবং সরস্বতী মাইতি নিজেদের দম্পতি পরিচয় দিয়ে গোলাবাড়ি থানার ডবসন রোডের একটি হোটেলে ওঠে গত শুক্রবার। হোটেলে জমা দেওয়া আধার কার্ড থেকে পুলিশ জানতে পেরেছে তরুণটির বয়স ২২ ও তরুণীর বয়স ২০। হেটেলের দোতলার ১০১ নম্বর ঘরে ছিলেন তাঁরা। শনিবার হোটেলের ঘর সাফাই করতে গিয়ে কর্মীরা দেখতে পান দরজা বন্ধ। অনেক ডাকাডাকি করেও তাঁদের দু’জনের কারও সাড়া মেলেনি। পরিস্থিতি আন্দাজ করেই খবর দেওয়া হয় পুলিশে। পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে দরজা ভেঙে দু’জনকে উদ্ধার করে। তাঁদের তৎক্ষণাৎ হাসপাতালে পাঠানো হয়। হোটেলের ওই ঘরে মিলেছে কীটনাশকের শিশি। মনে করা হচ্ছে কীটনাশক খেয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছিলেন ওই দু’জন।

তদন্তে নেমে পুলিশ জানতে পারে, প্রীতম এবং সবস্বতী স্বামী-স্ত্রী নয়। সরস্বতীর স্বামী দুবাইতে থাকেন। তাঁর সঙ্গে ঘনিষ্ঠতা হয়েছিল প্রীতমের। দু’জনের সম্পর্কের কথা জানাজানি হয়ে যায়। এর পরই তাঁরা বাড়ি ছেড়ে বেরিয়ে হাওড়ার ওই হোটেলে স্বামী-স্ত্রী পরিচয় দিয়ে ওঠেন। সম্পর্কের পরিণতি সুখকর হবে না তা ধরে নিয়েই দু’জনে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন বলে পুলিশের অনুমান। এই ঘটনায় প্রীতম এবং সরস্বতী কারও পরিবারই থআনায় অভিযোগ করতে চায়নি বলে পুলিশ সূত্রে খবর।

আরও খবর: মঙ্গলবার বাঁকুড়া থেকে মোদীর সঙ্গে ভার্চুয়াল বৈঠকে যোগ দেবেন মমতা

আরও খবর: আবার মেয়ে সন্তান, মেরে পুকুরে ফেলে দিল বাবা, চাঞ্চল্য মগরাহাটে

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন