• সংবাদ সংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

যে দেশে করোনার প্রকোপ সব থেকে বেশি, সেখানে কী ভাবে পার্টি চলছে দেখুন!

Party
ছবি: টুইটার থেকে নেওয়া।

চিন থেকে শুরু হয়ে প্রায় গোটা বিশ্বে ছড়িয়ে গিয়েছে করোনাভাইরাস অতিমারি । এক এক দেশে হাজার হাজার মানুষ মারা যাচ্ছেন। এই মুহূর্তে বিশ্বের মধ্যে আমেরিকায় কোভিড-১৯-এর প্রকোপ সব থেকে বেশি। প্রতিদিন সেখানে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়েই চলেছে। কিন্তু তার মধ্যে এমন কিছু ছবি উঠে আসছে, যা আরও ভয়ের। মানুষ এক জায়গায় দল বেঁধে পার্টি করছেন, নূন্যতম নিয়ম না মেনেই।

গোটা বিশ্ব জুড়ে কোথাও মানুষ আতঙ্কে ঘর থেকে বার হচ্ছেন না তো কোথাও সামাজিক দূরত্ব রেখেই জীবন স্বাভাবিক রাখার চেষ্টা হচ্ছে। কল-কারখানা, অফিসের পাশাপাশি রেস্তরাঁও খোলা হচ্ছে। আমেরিকায় লকডাউন তোলার দাবিতে অনেক দিন ধরেই বিক্ষোভ দেখাচ্ছিলেন মানুষ। এখন কিছু কিছু জায়গায় নিয়ম শিথিল করা হয়েছে। তার মধ্যেই এমন একটি ভিডিয়ো সামনে এল যেখানে দেখা যাচ্ছে, জলের মধ্যে প্রায় গা ঘেঁষাঘেঁষি করে নাচছেন অনেকে।

ম্যাক্স লুইস নামে এক মার্কিন সংবাদিক আজ, রবিবার একটি ভিডিয়ো পোস্ট করেছেন।  সেখানে তিনি লিখেছেন, ‘মিশিগানের ডায়মন্ড লেকের দৃশ্য। দেখে মনে হচ্ছে বিপর্যয় সমাগত প্রায়।'

আরও পড়ুন: কুকুরের মতো দেখতে বাদুড়, না বাদুড়ের মতো কুকুর? দেখুন কোথায় পাওয়া যায় এই প্রাণী

তাঁর পোস্ট করা ভিডিয়োতে দেখা যাচ্ছে, ওই হ্রদের জলে নেমে খুব কম জায়াগার মধ্যে প্রচুর নারী-পুরুষ এক সঙ্গে পার্টি করে চলেছেন। মিউজিকের তালে তালে নাচছেন। ভিডিয়োতে তাঁদের কাউকেই মাস্ক পরে থাকতে দেখা যায়নি । সেখানে এক ব্যক্তিকে 'সিকিউরিটি' লেখা টি-শার্ট পরেও দেখা যাচ্ছে।

আরও পড়ুন: অতিমারি-লকডাউন-কাজে ফেরা, সব মিলিয়ে কেমন আছেন তাঁরা, মিম দিয়ে জানাচ্ছেন নেটাগরিকরা

যেভাবে তাঁরা কাছাকাছি নাচছেন, সেখানে এক জনের মধ্যে যদি করোনাভাইরাস থেকে থাকে তবে বাকিদের মধ্যে ছড়িয়ে পড়া খুব সহজ। গোটা দেশ যে করোনার সঙ্গে লড়ছে, তা তাঁদের দেখলে যেন মনেই হবে না। অনেক দিন ঘরবন্দি থাকার পর বাইরে বেরিয়ে তাঁরা একটুও মজা করার সুযোগ যেন ছাড়তে চাইছেন না।

দেখুন সেই ভিডিয়ো:

আমেরিকায় এখনও পর্যন্ত করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন প্রায় ২৯ লাখ মানুষ। যাঁদের মধ্যে মৃত্যু হয়েছে প্রায় এক লাখ ৩২ হাজার জনের। সুস্থ হয়ে উঠেছেন ১২ লাখ ৬০ হাজার করোনা আক্রান্ত রোগী। তবে এই ভিডিয়ো দেখে অনেকেই আশঙ্কা করছেন, এমন চলতে থাকলে আরও বহু মানুষ দ্রুত আক্রান্ত হবেন।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন