মালাইকারি কিন্তু মাংসের, এই পদ না খেলে ঠকবেন

নিজস্ব প্রতিবেদন
মালাইকারি কিন্তু মাংসের, এই পদ না খেলে ঠকবেন

চিকেন কষা বা আলু দিয়ে চিকেনের ঝোল, থোর বড়ি খাড়া আর খাড়া বড়ি থোরের একঘেয়ে রেসিপিতে চিকেনের প্রতি বিরাগ জন্মাচ্ছে ক্রমশই। মাঝে মাঝে যদিও চিলি চিকেন বা সুপে চুমুক দিলে খানির স্বাদবদল হয়, তবে ভাত বা পোলাও নিমেষে চালান হয়ে পারে পেটে, এমন চিকেন আর পাচ্ছেন কই?

এ দিকে কোলেস্টেরল, ট্রাইগ্লিসারাইড, হার্টের অসুখের জেরে চিকিত্সকের কড়া নির্দেশে মাটন একেবারেই ‘নৈব নৈব চ’। তাই  রবিবারের দুপুরেও এখন ওই মুরগিই ভরসা।

রেস্তরাঁ হোক কিংবা বাড়ি, মালাইকারি বললেই জিভে জল বাঙালির। এই মালাইকারির কায়দা যদি মাংসে মিশে যায়, মন্দ কী? ভাবছেন চিংড়ির গন্ধ ছাড়া মালাইকারি আবার জমবে না কি! আলবাত জমবে। রবিবারের দুপুরে মুরগি মালাইকারির এই রেসিপি বানিয়ে চমকে দিন বাড়ির সকলকে। খুদে থেকে বড় সবাই চেটেপুটে খাবে জিভে জল আনা চিকেনের এই পদ। কী ভাবে বানাবেন এই পদ?

আরও পড়ুন: রেস্তরাঁ স্টাইল সেজুয়ান চিকেন বানিয়ে ফেলুন বাড়িতেই

গ্রাফিক: তিয়াসা দাস

আরও পড়ুন: দ্য গ্র্যান্ড-এর রেসিপিতে মুরগির দম এ বার বাড়িতেই

প্রণালী:

একটি পাত্রে টুকরো করে কাটা চিকেন নিয়ে তাতে টক দই, নুন,লঙ্কা গুঁড়ো আর সামান্য সাদা তেল দিয়ে আধ ঘণ্টা ম্যারিনেট করে রাখুন। এরপর কড়াইতে তেল গরম করে মাংসের টুকরোগুলি হালকা ভেজে তুলে রাখুন। এবার ওই কড়াইতেই আরও খানিকটা তেল দিয়ে তাতে পেঁয়াজ, টমেটো, কাঁচালঙ্কা, কাজুবাদাম, চারমগজ দিয়ে ভাল করে ভেজে নিন। এরপর মিশ্রণটি ঠান্ডা করে মিক্সিতে বেটে নিতে হবে। এ বার পুনরায় কড়াইতে তেল গরম করে তাতে আদা-রসুন বাটা ও একে একে সব গুঁড়ো মশলা দিয়ে ভাল করে কষিয়ে নিন। মশলা থেকে তেল ছেড়ে এলে ভেজে বেটে রাখা মিশ্রণ যোগ করুন। আর একটু কষিয়ে নিন। এর পর নারকেলের দুধ যোগ করুন, ভাল করে মিশিয়ে ভেজে রাখা চিকেনগুলি দিয়ে দিন। ঢিমে আঁচে চিকেন সেদ্ধ করে নিন। গ্রেভি মাখোমাখো হয়ে এলে ফ্রেশ ক্রিম আর গরম মশলা গুঁড়ো ছড়িয়ে গ্যাস বন্ধ করে দিন। গরম ভাত কিংবা পোলাওয়ের সঙ্গে পরিবেশন করুন মুরগি মালাইকারি।