• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

আইন হাতে তোলা যায় না, তেলঙ্গানার বিতর্কিত এনকাউন্টার নিয়ে মুখ খুললেন মমতা

Mamata on Encounter
গ্রাফিক: শৌভিক দেবনাথ

তেলঙ্গানায় তরুণী চিকিৎসককে গণধর্ষণ-খুন কাণ্ডে অভিযুক্তদের এনকাউন্টারে মৃত্যুর ঘটনার তীব্র নিন্দা করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। শুক্রবার মেয়ো রোডে মমতার বার্তা, নারীদের উপর যে কোনও ধরনের অত্যাচার যেমন তিনি সহ্য করেন না, তেমনই আইন নিজের হাতে তুলে নেওয়াকেও সমর্থন করেন না। একই সঙ্গে পুলিশের প্রতি নির্দেশ, এই ধরনের ঘটনায় সাত থেকে ১০ দিনের মধ্যে চার্জশিট দিতে হবে। উন্নাও ধর্ষণকাণ্ডে নির্যাতিতাকে পুড়িয়ে হত্যার চেষ্টার ঘটনা নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী।

গত ২৭ নভেম্বর হায়দরাবাদের সামশাবাদ এলাকায় তরুণী চিকিৎসককে গণধর্ষণ করে খুন করা হয়। শুক্রবার ভোরে অভিযুক্ত চার জন পালানোর চেষ্টা করলে এনকাউন্টারে তাঁদের মৃত্যু হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ। সেই খবরে তোলপাড় সারা দেশ। উঠে আসছে পক্ষে-বিপক্ষে নানা মত। শুক্রবার বি আর অম্বেডকরের মৃত্যুবার্ষীকিতে মেয়ো রোডের একটি অনুষ্ঠান যোগ দিয়ে সেইই ঘটনা নিয়েই মুখ খুললেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও।

মুখ্যমন্ত্রী এ দিন বলেন, ‘‘এটা আইন নয়, যে আইনকে আমি নিজের হাতে তুলে নিলাম। আইন এটাই, পুলিশ তার কাজ করবে, আদালতে পেশ করবে। বিচারক বিচারকের কাজ করবেন।’’ পুলিশের প্রতি কড়া নির্দেশ দিয়ে মমতা বলেন, ‘‘এই ধরনের ঘটনা ঘটলে সঙ্গে সঙ্গে গ্রেফতার করে দ্রুত চার্জশিট দিতে হবে। যত দ্রুত সম্ভব। তিন থেকে ১০ দিনের মধ্যে। কাগজপত্র জোগাড় করতে হবে।’’ পুলিশি গাফিলতির অভিযোগ উঠলেও সরকার যে কড়া হাতে তার মোকাবিলা করবে, সেই বার্তাও দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। তিনি বলেন, ‘‘এটা জরুরি অবস্থা হিসেবে দেখতে হবে। যে করবে না, তার বিরুদ্ধে অ্যাকশন নেওয়া হবে।’’

আরও পড়ুন: ভোররাতে বিতর্কিত ‘এনকাউন্টার’, তেলঙ্গানা ধর্ষণ-খুনের চার আসামীকে গুলি করে মারল পুলিশ

দক্ষিণ দিনাজপুরে একটি ধর্ষণকাণ্ডে ৭২ ঘণ্টার মধ্যেই চার্জশিট দিয়েছিল পুলিশ। এ দিন সেই উদাহরণ টেনে মমতা বলেন, ‘‘কখনও কখনও কিছু ঘটে যায়। আমরা সমর্থন করি না। কিন্তু আইনকেও শক্তিশালী হওয়া উচিত। আমরা সরকারে আসার পর দক্ষিণ দিনাজপুরে ধর্ষণকাণ্ডে তিন দিনে চার্জশিট দিয়েছিলাম।’’

হায়দরাবাদের এই ঘটনার আগের দিনই আবার উন্নাও ধর্ষণকাণ্ডে নির্যাতিতাকে পুড়িয়ে হত্যার চেষ্টার অভিযোগ ওঠে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে। মহিলাদের উপর অত্যাচার প্রসঙ্গে মমতা বলেন, ‘‘আমি কোনও মহিলার উপর অত্যাচার সহ্য করি না। হায়দরাবাদ ও উন্নাওয়ের ঘটনা আমাকে নাড়া দিয়েছে। উন্নাওয়ের কেসটা জানত সবাই। তার পরেও কী ভাবে তাঁকে পুড়িয়ে মারার চেষ্টা হল।’’

ভিডিয়ো: মেয়ো রোডের অনুষ্ঠানে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

 

আরও পডু়ন: তেলেঙ্গানা পুলিশকে দু’হাত তুলে সমর্থন সেলেবদের, প্রশ্ন একটাই, সংশয় জাগছে না মনে?

এই অনুষ্ঠানেই দেশের অর্থনীতির বেহাল দশা, বেকারত্ব নিয়ে কেন্দ্রের বিরুদ্ধে তোপ দাগেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। পেঁয়াজের দাম কেন কেন্দ্র নিয়ন্ত্রণে রাখতে পারল না, তা নিয়েও সুর চড়িয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন