• সংবাদ সংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

নার্সিংহোমে ভর্তি স্বামী, ১১৪ দিন দেখা হয়নি, শেষে সেখানে বাসন ধোয়ার কাজ নিয়ে নিলেন মহিলা

Couple
ম্যারি, স্টিভ। ইউটিউব থেকে নেওয়া ছবি।

করোনার অতিমারি মানুষের জীবনে যেমন অনেক গুরুত্বপূর্ণ পরিবর্তন ডেকে আনছে, তেমন অনেক কিছুর গুরুত্বও নতুন করে যেন দেখিয়ে দিচ্ছে। প্রিয়জনদের থেকে দূরে থাকা যে কতটা কষ্টের আর, সেই দূরত্ব ঘোচাতে মানুষ কী করতে পারে, দেখিয়ে দিলেন এক প্রৌঢ়া, সংবাদমাধ্যমে এমনই এক ঘটনা সামনে এল। যেখানে স্বামীর সঙ্গে দেখা করতে নার্সিংহোমেই বাসন ধোয়ার কাজ নিলেন ওই মহিলা।

ম্যারি ড্যানিয়েলের সঙ্গে ২৪ বছর আগে বিয়ে হয়েছিল স্টিভের। ২০১৩ সাল নাগাদ স্টিভের অ্যালঝাইমার্স ধরা পড়ে। হাসপাতালে চিকিৎসা শুরু হয়। সেই সময় ম্যারি, স্টিভকে কথা দিয়েছিলেন, তিনি সব দিন স্বামীর পাশে থাকবেন। কিন্তু সমস্যা তৈরি করল করোনা।

ফ্লোরিডার ফোর্ট লউডারডালে এলাকার এক নার্সিংহোমে ভর্তি রয়েছেন স্টিভ। করোনার কারণে ওই নার্সিংহোমে বাইরের কাউকে ঢোকার অনুমতি দেওয়া হচ্ছে না। কিন্তু ইতিমধ্যেই ১১৪ দিন কেটে গিয়েছে, স্টিভের সঙ্গে দেখা হয়নি ম্যারির। তাই আর তিনি অপেক্ষা করতে রাজি নন। শেষে নার্সিংহোমে ঢোকার অভিনব বুদ্ধি বের করেছেন তিনি।

বাইরের কারও যখন ঢোকার অনুমতি নেই, তখন নার্সিং হোমের ভিতরের লোকই হয়ে যাওয়ার কথা ভাবেন ম্যারি। তিনি নার্সিংহোমেই একটি কাজ জোগাড় করে নেন।  এখন তিনি সেখানে বাসন ধোয়ার কাজে নিযুক্ত। ফলে এখন আর রোজ তাঁর স্টিভের সঙ্গে দেখা করার কোনও অসুবিধা নেই। দু’জনে নার্সিংহোমেই এক সঙ্গে বেশ কিছুটা সময় কাটাচ্ছেন।

আরও পড়ুন: এক গলা জলে ডুবেও দিব্যি চলছে বাইক

আরও পড়ুন: স্ত্রীর স্মৃতি রক্ষায় তাঁর পূর্ণাবয়ব মূর্তি বসল ব্যবসায়ীর নতুন বাংলোতে

স্টিভ-ম্যারির এই প্রেম কাহিনি নিয়ে বেশ কয়েকটি সংবাদমাধ্যম খবর প্রকাশ করেছে। এমনকি ইউটিউবে সেই ভিডিয়োও আপলোড হয়েছে। যথারীতি সেই ভিডিয়োগুলি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে গিয়েছে।

দেখুন সেই ভিডিয়ো:

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন