স্পেনের মাদ্রিদে বাড়ি ৩৩ বছরের ডায়ানা আন্দ্রিয়াস রিভেরার। সম্প্রতি তিনি লন্ডনের হিথরো বিমানবন্দর থেকে মাদ্রিদ যাওয়ার বিমান ধরতে গিয়েছিলেন। হাতে অনেকটা সময় কাটাতে হিথরো বিমানবন্দরের দু’নম্বর টার্মিনালে থাকা একটি পাবে বসে আকণ্ঠ মদ্যপান করেন তিনি। তার পর বিমানে উঠতে যান। কিন্তু সে সময় তিনি এতটাই মত্ত ছিলেন যে, নিজের পাসপোর্ট-সহ প্রয়োজনীয় কাগজপত্র অবধি দেখাতে পারছিলেন না।

স্বাভাবিক ভাবে ওই অবস্থায় তাঁকে বিমানে উঠতে বাধা দেন কর্তব্যরত পুলিশকর্মীরা। তখনই তাঁদের সঙ্গে দুর্ব্যবহার শুরু করেন ৩৩ বছরের ওই যুবতী। মত্ত অবস্থায় তিনি পুলিশ অফিসারদের লাথি মারেন। পুলিশকর্মীদের কামড়ানোর চেষ্টাও করেন।

এর পরই তাঁকে গ্রেফতার করে পুলিশ। সে সময় ডায়ানার কাছ থেকে একটি ছুরিও উদ্ধার হয়। যদিও ওই ছুরি দিয়ে তিনি কাউকে আক্রমণের চেষ্টা করেননি। ছুরি নিয়ে যাওয়া ও কর্তব্যরত অবস্থায় থাকা পুলিশকর্মীদের আক্রমণ করায় তাঁকে শাস্তি দিয়েছে সেখানকার আদালত। শাস্তি হিসাবে তাঁকে ১০০ ইউরো জরিমানাও করা হয়েছে। জানা গিয়েছে, ওই যুবতী স্পেনের বিখ্যাত ভিক্টর ব্যালে কোম্পানিতে নর্তকী হিসাবে কাজ করেন। 

ব্যালে ডান্সার হিসাবে কাজ করেন ডায়ানা। ছবি ফেসবুক থেকে সংগৃহীত। 

আরও পড়ুন: মারণ রোগে ধুঁকছে ছোট ভাই, পাঁচ বছরের দিদির সান্ত্বনা দেওয়ার ছবি দেখে নেটদুনিয়ার চোখে জল

আরও পড়ুন: বিজনেস ট্রিপে গিয়ে যৌন মিলনের সময় মৃত্যু, ‘কর্মস্থলে দুর্ঘটনা’ বলে ক্ষতিপূরণের নির্দেশ আদালতের!