যাঁরা কুকুর পোষেন তাঁদের একটা সমস্যা, পোষ্যিটিকে বাড়িতে রেখে অফিসা যাওয়া। বাড়িতে কুকুর দেখাশোনার লোক থাকলেও সেটিকে ছেড়ে অফিস যাওয়ার পরেও বাড়িতে ফোন করে খোঁজ খবর নিতে হয় সব ঠিক আছে কিনা। কিন্তু ভাবুন যদি প্রিয়পোষ্যিটিকে নিয়েই যদি অফিস যাওয়া যেত। হ্যাঁ সম্ভব! মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে প্রতি বছর এক শুক্রবার অফিসে নিয়ে যেতে পারেন পোষা কুকুরটিকে।

১৯৯৯ সালে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে এই উদ্যোগ শুরু হয়। সে বছর ২৪ জুন শুক্রবার পোষা কুকুর অফিসে নিয়ে যাওয়ার রেওয়াজ চালু হয়। আসলে ভাবনাটা ছিল, কুকুরের প্রতি ভালবাসাটা বাড়িয়ে তোলা। যাতে নাগরিকরা  বিভিন্ন উদ্ধারকারী বা আশ্রয়দাতা সংগঠনের কাছ থেকে কুকুর দত্তক নিতে উত্সাহ পান।

তারপর থেকে প্রায় প্রতিবছর এই দিনটি পালন করা হয়। এই বছর দিনটি পড়েছিল ২১ জুন।যে সব কোম্পানি কুকুর নিয়ে অফিস আসার অনুমতি দেয় সেই সব জায়গায় এই দিনটি প্রায় উত্সবের মেজাজে কাটে।অফিসে আসা এই সব কুকুরদের ছবি পোস্টও করেন তাদের মালিকরা।

 

আরও পড়ু্ন : একটা ক্ষুদ্র প্রাণী আটকে দিল ১২ হাজার জাপানিকে

আরও পড়ু্ন : রেকর্ড করা হাঁসের ডাক শুনিয়ে বাচ্চাদের বের করছেন দমকল কর্মীরা! 

ভাবছেন বেশ হত, যদি এদেশেও এমন একটা দিন থাকত। আবার কেউ হয়ত ভাবছেন, যদি রোজই পোষ্য নিয়ে অফিসে আসা যেত!তবে হিংসে করার মতো সেই সৌভাগ্য কয়েকজনের আছে বৈকি। যাঁদের দৈনন্দিন কাজই হল কুকুর নিয়ে নিরাপত্তার দেখভাল করা। ডগ স্কোয়াডের অফিসাররাতাই কুকুর নিয়েই কর্মস্থলে যান। সারাটা দিন তাঁরা তাঁদের প্রিয় পোষ্যকে সঙ্গে রাখতে পারেন।

কী ভাবছেন পুষবেন নাকি একটা সুন্দর কুকুর?